Sunday, June 23, 2013

Tumi Jodi Thakta ( তুমি যদি থাকতে )

তুমি যদি থাকতে

দুপুরের আহার ভুলিয়া গিয়েছিনু নিদ্রাদেবীর কোলে
আচমকা জাগিয়া দেখি, ভুবন মিষ্টি আদলে।
নিজেকে অবলোকন করিলাম সবুজ স্বপ্ন বিভোর
হস্ত-পার্শ্বের বালিশ খানি বুকে ধরিয়া জোর।

প্রিয়তম, তুমি যদি থাকিতে মোর নিকট নয়ন
এই দৃশ্য দেখিতাম নাহি যেয়ে শয়ন।
ধরিত্রীর নিকট আমি, করি হাজার মিনতি
প্রকৃতি প্রেম তব অন্তরে, যেন নাহি পড়ে কমতি।

দক্ষিণা বারান্দায় বসিয়া ভাবি তোমারি কথা
হেলান দিয়া রাখিতাম তোমারি বুকেতে মাথা।
পশ্চিমা জানালায় বহে বসন্ত বাতাসের দোলা
তোমায় দেখিবার লাগি মন হইয়াছে উতলা।

বলিতাম, আম্র-মুকুল ধরিছে কেমন শাখে?
দুষ্ট ভোমর ঘুরিয়া আমায় বারংবার দেখে।
মিষ্টি-মধুর রসের গন্ধে লাগিছে মধুর নেশা
থাকিতে যদি পাশে তুমি, পাইতাম দিশা।

আঁড়াল হইতে দুষ্ট বালক উঁকি দিয়া চায়
রাখিব কেমনে, যৌবন-যে ভাঁটা পড়িয়া যায়।
শুষ্ক পাতারা ঝরিয়া পড়িছে নতুনত্বের আশা
তুমি থাকিলে পাশেতে, খুঁজিয়া পাইতাম ভাষা।

আসিয়া দেখিয়া যাও মোদের গাও খানি
বলিলে আসিবে তুমি, এই কথাটি মানি।
দূর হইতে ভাসিয়া আসিছে তটিনীর শব্দ
দেখিতে থাকিলে বইয়া যাইবে শত-সহস্রাব্দ।

শিশুদের বুকে বহিছে উত্তল আনন্দ-ঢেউ
দেখিয়া যাও এই উল্লাস মিটাইবেনা কেউ।
ভাবনাগুলি দোলা দিছে সকাল-বিকাল-সাঁঝে
নয়ন-সম্মুখে নাহি থাকিলেও, রহিয়াছ হৃদয় মাঝে।


No comments:

Post a Comment

Last 7 Days!

App