Friday, May 24, 2013

Nupur -নুপুর

সুন্দর ধরণীর বুকে দাঁড়িয়ে থাকা বৃক্ষের মত
উদার তুমি নুপুর। প্রকৃতির রং রূপ মাধুর্য্য
নিয়ে তুমি দাঁড়িয়ে ছিলে ওই বৃক্ষের তলে
এক মুঠো কাঁশ ফুল হাতে।
তুমি ভাবছ আমি তোমায় দেখেছি, না দেখিনি।

সবুজ পাতার নিচে প্রাসাদ সম বাড়িতে
তুমি খোলা চুলে বসেছ বসন্তের দুপুরে। মনে পড়ে,
ছাদে দাঁড়িয়ে চুল শুকিয়ে চিরুনিকে আদেশ করেছিলে
তোমার বেণী সাজাতে।
তুমি ভাবছ আমি তোমায় দেখেছি, না দেখিনি।

তোমার দৃষ্টি সীমার সম্মুখে রয়েছে নীল সমুদ্রের মত
বি¯তৃত আকাশ, যার তলে তুমি একা দাঁড়িয়ে
ভেবেছিলে কতই না সুন্দর-মনোরম এই
পৃথিবিটা
তুমি ভাবছ আমি তোমায় বুঝেছি, না বুঝিনি।

চঞ্চলা চপলা কোমল তনয়া তুমি নুপুর।
তোমার কোমল হৃদয়ে লুকিয়ে থাকা
অস্পষ্ট ভাষা গুলো বলছে একাকি পথ চলার
কথাটা।
তুমি ভাবছ আমি তোমায় বুঝেছি, না বুঝিনি।

সদ্য প্রস্ফুটিত গোলাপের পাপড়ির মত শুভ্র হাসিটা
ত্রিভুবনকে আন্দোলিত করে নেশা ধরিয়ে দেয়।
সেই হাসিটার মর্মার্থ ছড়িয়ে দিল সবুজ
প্রান্তর।
তুমি ভাবছ আমি তোমায় দেখেছি, না দেখিনি।

শিশুর কোমল পায়ে আলতো ভাবে হেটে চলেছিলে
বাঁকা পথটি ধরে সুন্দর কাননে। চলার ছন্দে কাননের ফুল
নৃত্য করে প্রকৃতিকে জানিয়ে দেয় নুপুরের আসার
খবর।
তুমি ভাবছ আমি তোমায় দেখেছি, না দেখিনি।


মিষ্টি ভাষী অপরূপা তুমি বলেছিলে মধুর স্বরে
কথা তোমার বন্ধুর সাথে, যে কথা আমি দূর থেকে
শুনেছিলাম। তোমার মুখের ভাষা এনে দিয়েছে আমার চলার
গতি।
তুমি ভাবছ আমি তোমায় দেখেছি, না দেখিনি।

আকাশে উড়া পাখির মত ডানা মেলে উড়ে চলে তোমার মন
সাদা মেঘের ভেলার উপর আর রাতের øিগ্ধতা,
চন্দ্রের আলো, তারকাদের বন্ধুত্ব তোমাকে দিয়েছে অকৃত্রিম
প্রীতি।
তুমি ভাবছ আমি তোমায় দেখেছি, না দেখিনি।

তুমি অনেক দূরে গৃহ কোণে নিরবে বসে ভাবছ,
তার দেখা পেলাম না এই দু’নয়ন সম্মুখে।
সে নিশ্চয় আমাকে লুকিয়ে লুকিয়ে দেখেছে।

তুমি এখনও ভাবছ আমি তোমায় দেখেছি,
সত্যিই আমি তোমায় দেখিনি নুপুর।

No comments:

Post a Comment

Last 7 Days!

App